হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি এবং বিনামূল্যে বিতরণ করল আইআইইউসি ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশন

বৈশ্বিক মহামারি ‘করোনাভাইরাস’ সংক্রমনে বাংলাদেশও বিপর্যস্ত। দিন দিন বেড়েই চলছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা আর এ পরিস্থিতিকে পুঁজি করে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী জীবানুরোধক এ পণ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে অধিক মুনাফায় মানুষের কাছে বিক্রি করছে। আর এই অসাধু ব্যবসায়ীদের রুখে দিতে এবং বিপন্ন মানুষের পাশে দাঁড়াতেই সচেতনতামূলক লিফলেট এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার নিজ উদ্যোগে তৈরি করে বিনামুল্যে বিতরণের করেছে আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশন। এর ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার দিনব্যাপী বিভিন্ন দলে বিভক্ত হয়ে বিতরণ করা হয়েছে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, চট্টগ্রাম রেলওয়ে হাসপাতাল, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল, পাচঁলাইশ থানা, কোতোয়ালি থানা, বিভিন্ন মিডিয়া সেন্টার, বিভিন্ন সরকারি অধিদপ্তর, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর, বিভিন্ন জনবহুল স্থান এবং অসহায় দুস্থদের মাঝে। এমন তথ্য দিয়েছেন আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশন সভাপতি ইরফানুল হক। তিনি আরও বলেন- আমরা ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরকে অবহিত করে দেশের এ ক্রান্তিলগ্নে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করার উদ্যোগ নেয়া হয়।

সৌজন্য সাক্ষাৎকারে ডিজিডিএ এর সহঃ ডিরেক্টর হোসাইন এম এমরান বলেন- বানিজ্যিক মনোভাব এড়িয়ে আইআইইইসি ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশন যেভাবে মানবসেবায় বিনামূল্যে স্যানিটাইজার বিতরণ করেছে তা অনুকরণীয়। চট্টগ্রামে মডেল ফার্মেসী বাস্তবায়নে তিনি আইআইইইসি ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশনের সহায়তা চাইলেন।

এদিকে কোতোয়ালি থানায় বিতরণকালে মোহাম্মদ মহসিন পিপিএম বলেন- দেশের এ অবস্থায় আইআইইইসি ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশন যে উদ্যোগ নিয়েছে তা ভূয়সী প্রশংসার দাবী রাখে।

এমনি মতামত ব্যক্ত করেছেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ এর ডেপুটি ডিরেক্টর আফতাবুল ইসলাম। তিনি আরও জানান- আমাদের হাসপাতালে এই মূহুর্তে স্যানিটাইজার যথেষ্ট প্রয়োজন ছিল। তারা খুশী হয়ে আইআইইইসি এলামনাই এসোসিয়েশনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

চট্টগ্রামে করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে রোগীদের যে কয়েকটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে সেগুলোর মধ্যে অন্যতম চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল। করোনাভাইরাস সংক্রান্ত খবর সম্পাদনের দায়িত্বে থাকা দৈনিক একুশে পত্রিকার সম্পাদক আজাদ তালুকদার বলেন- আমাদের সংবাদ সংগ্রহ করতে হয় মানুষের দ্বারে গিয়ে যা করোনা সংক্রমণে ঝুকিপূর্ণ। আই আই ইউ সি এলামনাই এসোসিয়েশন সে দিক চিন্তা করে গণমাধ্যম কর্মীদের যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করলো তা খুবই উপযোগী এবং গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে বিতরণকালে তত্ত্বাবধায়ক, ডাঃ অসীম কুমার নাথ
খুব আনন্দিত হন এবং এলুমনি ক্লাবের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এদিকে চট্টগ্রাম রেলওয়ে হাসপাতাল কতৃপক্ষ সন্তুষ্ট হয়ে আরও স্যানিটাইজার পেতে আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং এলামনাই এসোসিয়েশন আরও স্যানিটাইজার দিতে সম্মতি জ্ঞাপন করে।

ইতিমধ্যেই চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল কতৃপক্ষ আইআইইউসি ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশন এর উদ্যোগে খুশি হয়ে লিখিত ভাবে অভিনন্দন জানিয়েছে।

বিনামূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও লিফলেট বিতরণী অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তায় এবং দিকনির্দেশনায় ছিলেন আইআইইউসি ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি ইরফানুল হক এবং সহ-সভাপতি দীপজয় চৌধুরী। অনুষ্ঠানটির তত্ত্বাবধানে ছিলো সাধারণ সম্পাদক এটিএম ইউসুফ, কোষাধ্যক্ষ নাজমুস সাকিব, সাংগঠনিক সম্পাদক আতিক রিয়াদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আকবর হোসেন ও মেরাজুল ইসলাম আইমান, সহ-দপ্তর সম্পাদক ইকরাম উদ্দিন, প্রেস ও প্রকাশনা সম্পাদক আরিফুল ইসলাম, সানজিদা জাহান, সহ-প্রেস ও প্রকাশনা সম্পাদক নাজিফা প্রমি।

সার্বিক সহযোগিতায় ছিলো যুগ্মসচিব জালাল সিকদার ও ইয়াছিন সরকার, সহকারী সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রাহমান ও সাখাওয়াত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক আবিদুর রেজা, ক্রীড়া সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম এবং সংস্কৃতি সম্পাদক নাফিসা নাওয়ার।

বিতরণে সহযোগিতা করেন মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন, ইহছান চৌধুরী, তৌহিদুল আমিন আকিব এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান শিক্ষার্থী আশিক, জিসান, আবিদ, মাইনুদ্দিন, ওয়াজেদ, নাজমুল, সাকিব, অন্তর, ফারহানুল, হাসান, পায়েল, মাহদি, তায়েন, জিদান, সায়েম, অর্ণব, রুমান, শিফা, ফারহানা, নুসরাত, নওশীন, শারমিন & রৌদশী।
উল্লেখ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা আর্থিক অনুদান দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে এবং ইতিপূর্বে আইইডিসিআর এর ভলেন্টিয়ার হয়ে করোনা মোকাবিলায় কাজ করার আগ্রহ লিখিতভাবে জমা দিয়েছে আইআইইউসি ফার্মেসী এলামনাই এসোসিয়েশন।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *