সৌদি আরবে ধর্ষণের শিকার বাংলাদেশি কিশোরী

আবদুল আজিজ/সৌদি আরব প্রতিনিধিঃ
পরিবারের আর্থিক দুর্দশা কমাতে তিন মাস আগে গৃহকর্মীর কাজ করতে সৌদি আরবে যায় ১২ বছরের কিশোরী মালা (ছদ্মনাম)। কিন্তু একটি প্রতারক চক্র তাকে রিয়াদে নিয়ে গিয়ে কাজ দেওয়ার বদলে গণধর্ষণ করে। তিন দিন নির্যাতনের পর এক পর্যায়ে মালা অজ্ঞান হয়ে গেলে তাকে রিয়াদের ছিমুছি হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় ধর্ষকরা।বর্তমানে মালা রিয়াদের তৌমির হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।জানা যায়, মেয়েটির বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায়। গত তিন মাস ধরে রিয়াদের ছিমুছি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয় তাকে।বর্তমানে কিছুটা সুস্থ হয়ে নিজের নাম-ঠিকানা জানিয়েছে মালা? গত রবিবার তাকে তৌমির হাসপাতালে হস্তান্তর করা হয়।ওই হাসপাতালে কর্মরত এক বাংলাদেশি জানান, ধর্ষণের পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাস ও সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করে অপরাধীদের বিচার চেয়েছে মালার পরিবার। সেই সঙ্গে তাকে দেশে পাঠানোর দাবিও জানিয়েছে।১৬-০১-২০২০ ইং

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *