সাময়িকভাবে বিদেশীদের কুয়েত প্রবেশ বন্ধ করলো কুয়েত সরকার

আগামী দুই সপ্তাহের জন্য পৃথিবীর বিভ্ন্নি দেশের নাগরিকদের কুয়েতে প্রবেশ বন্ধ ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার। সনদ নিয়ে গিয়েও যাত্রীদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের শরীরে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেন ধরা পড়ায় এ সিদ্ধান্ত নেয় কুয়েতি সরকার।

গত বুধবার কুয়েতের মন্ত্রিপরিষদের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। পরে গত বৃহস্পতিবার এটি গণবিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশ করা হয়। দেশটির সিভিল এভিয়েশনও এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনার নতুন স্ট্রেন ধরা পড়ায় আজ রোববার থেকে শুরু করে দুই সপ্তাহ কুয়েতে নিজস্ব নাগরিক ও তাদের নিকটাত্মীয় এবং নিবন্ধিত গৃহকর্মী ব্যতীত আর কেউ প্রবেশ করতে পারবে না। কোনো বিদেশি নাগরিকদের এই সময়ের জন্য কুয়েতে প্রবশে করতে দেওয়া হবে না।

বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশসহ অন্যান্য কয়েকটি দেশের নামও উল্লেখ করা হয়েছে। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে কুয়েতি গণমাধ্যম আল আল রাই ও আল আনবা (জাতীয় দৈনিক)।

প্রতিবেদনগুলো বলা হয়েছে, যেসব গৃহকর্মী বালসালামা প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে দেশটি প্রবেশের জন্য নিবন্ধন করেছেন তাদের প্রবেশে কোনো বাধা নেই। আগতদের সাতদিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন শেষে পরের ৭ দিন ঘরে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় থাকতে হবে। কেউ যদি ভুয়া অথবা জাল করোনা সনদ নিয়ে আসেন, ধরা পড়লে তাদের ফিরতি ফ্লাইটে নিজ দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। একই সঙ্গে ৫০০ কুয়েতি দিনার জরিমানা গুনতে হবে।

পত্রিকাগুলোর খবরে আরও বলা হয়েছে, সেলুন, বিউটি পার্লার, জিম, খেলাধুলার ক্লাব রোববার থেকে বন্ধ করা হবে। মহল, রেস্টুরেন্ট বন্ধ থাকবে রাত ৮টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত। তবে, হোম ডেলিভারি সিস্টেম চালু থাকবে। জাতীয় ছুটির দিন গুলোতে যেকোনো ধরনের গণজামায়েত সভা সমাবেশ নিষিদ্ধ।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *