সন্দ্বীপে গৃহবধু তাহমিনার অস্বাভাবিক মৃত্যু।পরিবারের দাবী তাকে হত্যা করা হয়েছে

বাদল রায়/ সন্দ্বীপ প্রতিনিধিঃ

সন্দ্বীপে তাহমিনা বেগম ( ২৫) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বাউরিয়া ৫ নম্বর ওয়ার্ডস্থ আমানিরগো জামসেদ সুকানীর বাড়িতে গত সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় নিহত তাহমিনার স্বামী, শ্বশুড়কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে সন্দ্বীপ থানা পুলিশ। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ৩ বছর পূর্বে উপজেলার বাউরিয়া ইউনিয়নের মো. আরিফ ও মুছাপুর ইউনিয়নের তাহমিনা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্যজীবনে এক কন্যা সন্তান জন্মগ্রহণ করে। পারিবারিক বিরোধ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে প্রায় সময় ঝগড়া হতো। সোমবার রাত ৯ টার দিকে ওই পরিবারটিতে ঝগড়ার আওয়াজ শুনা গেছে। এসময় মো. আরিফ স্ত্রী তাহমিনাকে বেধড়ক মারপিট করার পর তাহমিনা অসুস্থ হয়ে পরলে অবস্থা বেগতিক দেখে তার স্বামী রাত ১১ টার দিকে গাছুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত ডা. মো.সাইফুল্লাহ বলেন, রাত ১১ টার দিকে তাহমিনার স্বামী তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। এসময় রোগীর খুব বেশি বমি হচ্ছিলো। হাসপাতালে নিয়ে আসার ৫ মিনিট পর রোগী মৃত্যুবরণ করেছে।রোগীর গায়ে আঘাতের চিহ্ন না থাকলেও শরীর ফুলা ছিল।সন্দ্বীপ থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ শরীফুল আলম বলেন, মৃত্যুর কারণ বিষয়ে আমরা এখনও নিশ্চিত নয়। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। পোস্টমর্টেম রিপোর্ট হাতে আসার পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। তবে, প্রাথমিকভাবে মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের জন্য নিহতের স্বামী, শ্বশুড়কে আটক করা হয়েছে।তদন্তের মাধ্যমে হত্যা নিশ্চিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।নিহত তাহমিনার বড় ভাই মোশারফ হোসেন বলেন, আমার বোনকে প্রায় সময় তার স্বামী শ্বশুড় নির্যাতন করতো। এটা তার স্বাভাবিক মৃত্যু নয় শ্বশুড় বাড়ির লোকজন তাকে মেরে ফেলেছে। আমরা আমাদের বোনেরর হত্যার উপযুক্ত বিচার চাই।১৪-০১-২০২০ ইং

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *