শ্রীলঙ্কান তরুনীর গানে মুগ্ধ ইন্টারনেট দুনিয়া।

গত কয়েক দিন ধরে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল একটি গান – ‘মানিকে মাগে হিতে’।অচেনা ভাষায় গাওয়া গানটি মুগ্ধ করেছে বাংলাদেশের নেটাগরিকদেরও।শুনতে ভারতের কোন প্রদেশের গান বলে মনে হলেও ভারতেরও অনেকে প্রদেশের নাগরিকদের জানা নেই গানের অর্থ।

আদতে শ্রীলঙ্কার সিংহলী ভাষায় গাওয়া গানের সুরে বুঁদ হয়ে গেছেন সবাই। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, ইউটিউব, টিকটক সবখানেই এখন গানটি নিয়ে আলোচনা। অনেক শিল্পী এর কভার সং তৈরি করেছেন। কেউ কেউ ভিন্ন রিদম জুড়েছেন। নতুন নতুন র্যা প যোগ করে গানটিকে আরও জনপ্রিয় করে তুলেছেন। সিংহালী ভাষার এই গানের তামিল, মালয় ও বাংলা সংস্করণ বের হয়েছে গেছে ইতোমধ্যে।

আর এই গান দিয়ে ভাইরাল হয়েছেন, একটি মিষ্টি চেহারার তরুণী। গানের গায়িকা তিনি। শুধু গানের সুরই নয়; ওই তরুণীর চাহনী আর হাসি মুগ্ধ করেছে কোটি হৃদয়কে।

এই গায়িকা শ্রীলংকার বাসিন্দা। তার নাম ইয়োহানি ডি সিলভা। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি ইয়োহানি নামে সুপরিচিত। তার বয়স মাত্র ১৮ বছর।

এই বয়সেই নিজেই গান লেখেন, সুর করেন। গান গাওয়ার পাশাপাশি বাদ্যযন্ত্রের ব্যবসাও রয়েছে তার। বিদেশি বাদ্যযন্ত্র আমদানি করে শ্রীলংকায় বিক্রি করেন, আবার সেখানকার স্থানীয় বাদ্যযন্ত্র অন্য দেশে রপ্তানি করেন।

শ্রীলংকায় দারুণ জনপ্রিয় ইয়োহানি। সেখানে নিয়মিত স্টেজ শো করেন। এর আগে ইয়োহানির গাওয়া আরেকটি গান সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। ‘মানিকে মাগে হিতে’ গানটি এবার তাকে ভারত, বাংলাদেশেও জনপ্রিয়তা এনে দিল। শ্রীলংকায় এখন তাকে ‘র্যা প প্রিন্সেস’ বলা হচ্ছে। হু হু করে বাড়ছে তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের ফলোয়াড়। তার ইউটিউবের সাবস্ক্রিবশন সংখ্যাও রাতারাতি বেড়ে এখন আকাশচুম্বি।

‘মানিকে মাগে হিতে’ লাইনটির বাংলা অর্থ হলো ‘তুমি আমার চোখের মণি’। গানটির প্রথম কণ্ঠশিল্পী শ্রীলংকার আরেক র্যা পার সথীশন রাথনায়কা। গত বছরের জুলাই মাসে গাওয়া গানটি। আর চলতি বছরের গত মে মাসে ইয়োহানির পুনরায় রেকর্ড করেন এটি।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *