রেস্টুরেন্টে বার্গার বানিয়েছি, সিকিউরিটির কাজও করেছি : শিক্ষা উপমন্ত্রী

যে কোনো কাজেই লজ্জা না পেতে শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দিয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল  বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকা অবস্থায় আমি তিনটা চাকরি করেছি। আমি রেস্টুরেন্টে বার্গার বানিয়েছি, সিকিউরিটির কাজও করেছি। সেই কাজের মধ্যে কোনো লজ্জা ছিল না। শিক্ষাজীবন শেষ করে সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করতে কোনো লজ্জা নেই। কোনো পেশাকে ছোট করে দেখা উচিত নয়।শনিবার (২৫ জানুয়ারি) সকালে চট্টগ্রাম নগরের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের জিমনেশিয়াম মাঠে স্কুলশিক্ষার্থীদের জন্য বাস সার্ভিস উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি বলছিলেন তার সেই সময়ের কথা। উপমন্ত্রী বলেন, যে কোনো কাজেই লজ্জা না পতে শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দিয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, ‘আমি যদি একজন বাসের ড্রাইভার হতে পারি, তাতে আমার যে বেতন, তা আজকের অর্থনীতিতে অনেক এমবিএ পাস ছাত্রও পায় না। বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকা অবস্থায় আমি তিনটা চাকরি করেছি। আমি রেস্টুরেন্টে বার্গার বানিয়েছি, সিকিউরিটির কাজও করেছি। সেই কাজের মধ্যে কোনো লজ্জা ছিল না। কিন্তু আমাদের দেশে সন্তানদের এমন কষ্ট করতে হয় না।’লেখাপড়া শেষে বড় বড় চাকরি পাওয়ার চিন্তাকে সংকীর্ণ চিন্তা বলে মনে করেন মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। তিনি বলেন, ‘স্কুল-কলেজ শেষ করে বড় বড় চাকরি পেতে হবে। আমাদের মধ্যে এমন একটি মানসিকতা রয়েছে। এই যে চিন্তাটা, অত্যন্ত সংকীর্ণ চিন্তা। তোমাদের সবসময় সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করতে হবে। শিক্ষাজীবন শেষ করে সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করতে কোনো লজ্জা নেই। কোনো পেশাকে ছোট করে দেখা উচিত নয়।’উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জিপিএইচ ইস্পাত লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আলমাস শিমুল সহ মহানগর আওয়ামী লীগ,যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও শ্রমিকলীগের নেতৃবৃন্দ সহ চট্টগ্রামের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রী সহ অনেকে। ২৫-০১-২০২০ ইং

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *