যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলা নিহত ১০

আবারো সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের ওহিও অঙ্গরাজ্যের ডেটন এলাকায়। এই ঘটনায় জনসাধারণের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করে। সবাই ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে ঘরের মধ্যেই আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ে। এ সন্ত্রাসী হামলায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১০ জন নিহত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছে গোলাগুলিতে অন্তত ২০ থেকে ২৫ জন নিহত হতে পারে।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ঠিক কতজন নিহত হয়েছে তা নিশ্চিত করে বলা যায়নি। ডব্লিউএইচআইও টিভির বরাত দিয়ে ডেইলি মেইল জানায়, ডেটনের ওরেগনে নেড পেপারস বারে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ফুটেজে ছবিতে দেখা যায়, ওই বারের বাইরে জরুরি সেবার গাড়ি ও চিকিৎসকেরা অবস্থান করছেন। হামলাকারী দুইজনের একজন পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে। আরেক হামলাকারী পালিয়ে গেছে। তাকে ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।এর আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে বন্দুকধারীর হামলায় ২০ জন নিহত হয়েছে। রোববার টেক্সাসের এল পাসো শহরে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়েছেন আরো ২৬ জন। এই হামলার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে দ্বিতীয় এ হামলার ঘটনা ঘটলো বলে খবরে বলা হয়েছে। গত কয়েক বছরে যুক্তরাষ্ট্রে আশঙ্কাজনকভাবে সন্ত্রাসী হামলা হচ্ছে। এ ঘটনায় বিব্রতবোধ হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি দ্রুত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *