বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার আলোচনা সভায় চেয়ারপারসন দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়ার অবিলম্বে মুক্তির দাবী।

সিডনি রিপোর্টারঃ- বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা দিবস এবং সাবেক মহাসচিব খন্দকার দেলোয়ার হোসেন, সাবেক উপ রাষ্ট্রপতি মরহুম ব্যারিস্টার মওদুদ আহম্মেদের জন্য বিশেষ দোয়া ও আলোচনা সভা।

মোসলেহ উদ্দিন হাওলাদার আরিফের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সাবেক সভাপতি জনাব মনিরুল হক জর্জ , সাবেক আহবায়ক মো.দেলোয়ার হোসেন, প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ইউসুফ আব্দুল্লাহ শামীম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী স্বপন, আব্দুল ওহাব বকুল, সাধারন সম্পাদক কুদরত উল্লাহ লিটন, তৌহিদুল ইসলাম, তারেক উল ইসলাম তারেক,ইয়াসির আরাফাত সবুজ, এএন এম মাসুম, আব্দুল মতিন উজ্জ্বল, একে এম মাহবুব তালুকদার রিপন, আব্দুস সামাদ শিবলু।

আবুল হাসানের সাবলিলভাবে পরিচালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতেই বিএনপির চেয়ারপারসন দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়া, সাবেক মহাসচিব মরহুম খন্দকার দেলোয়ার হোসেন এবং সাবেক উপরাষ্ট্রপতি মরহুম ব্যারিস্টার মওদুদ আহম্মেদ সহ বিএনপির অসুস্থ নেতৃবৃন্দের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়।অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ইউসুফ আব্দুল্লাহ শামীম।

অনুষ্ঠানে আর ও নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইন্জিনিয়ার কামরুল ইসলাম শামীম , অনুপ আন্তনী গোমেজ, এস এম খালেদ, এস এম রানা সুমন,মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন , যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ জাকির হোসেন রাজু, পবিত্র বড়ুয়া,আব্দুল করিম, গোলাম রাব্বী , গোলাম রাব্বানী ,মোহাম্মদ জসিম, মোহাম্মদ কবির হোসাইন,এম ডি কামরুজ্জামান,জসিম উদ্দিন, কুদ্দুসুর রহমান , নাসির উদ্দিন বাবুল প্রমুখ৷

বিএনপির নেতৃবৃন্দ বলেন,শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ঘোষনার মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম শুরু হয়েছিল। আজ একজন মুক্তিযোদ্ধা মহান স্বাধীনতার ঘোষক সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া অবৈধভাবে বন্দী অবস্থায় আছেন এটা কোনভাবেই মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। আমরা অবিলম্বে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই। আমরা এর নিচে কিছু চাই না। মুক্তি দিতে হবে, নিঃশর্তভাবে মুক্তি দিতে হবে। আমাদের যেসব নেতা–কর্মী বন্দী আছেন তাদের সবাইকে মুক্তি দিতে হবে।

আমাদের নেতাভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সাহেবের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে, আমাদের নেতা–কর্মীদের বিরুদ্ধে ৩৫লাখ মামলা আছে তা প্রত্যাহার করতে হবে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করতে হবে।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *