বহিষ্কার ওমর ফারুক চৌধুরী।

যুবলীগ সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় দলীয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ৭১ বছর বয়সী ওমর ফারুক চৌধুরীর বিরুদ্ধে দুর্নীতি অভিযোগ আনা হয়েছিল। ক্যাসিনো অভিযানের শুরু থেকেই তিনি ছিলেন আলোচনায়।রোববার (২০ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিনিধি দলের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


রোববার বিকেল ৫টায় গণভবনে বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে ওমর ফারুক চৌধুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন, শেখ ফজলুর রহমান মারুফ এবং শেখ আতিউর রহমানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। চেয়ারম্যানের অনুপস্থিতিতে প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এম হারুনুর রশিদ। বৈঠকে যুবলীগের আসন্ন কংগ্রেসসহ সংগঠনটির ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের বিষয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। সম্প্রতি ‘অসামাজিক’ কার্যকলাপে সংশ্লিষ্ট থাকায় সংগঠনটির বেশ কয়েকজন নেতাকে বহিষ্কার করা হয়। এখন থেকে যুবলীগের নেতার ৫৫ বছর পর্যন্ত যুবলীগের দায়ীত্ব পালন করতে পারবেন। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে ফজলে নূর তাপস এমপি কে যুবলীগের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

স্বাধীন কন্ঠ/ রবিউল।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *