প্রথম দেশ হিসেবে যুক্তরাজ্যে টিকাদান শুরু আজ।

অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেশটিতে এই টিকা পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রথম সারিতে আছেন স্বাস্থ্য কর্মীরা। এ ছাড়া ৮০ বছরের বেশি বয়সী প্রবীণ ও কেয়ার হোমের কর্মীরাও এ টিকা পাবেন। স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা মঙ্গলবার সকাল থেকে টিকাদান শুরু করবেন।

যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের জন্য মঙ্গলবারের সকালটি অন্যরকম হতে যাচ্ছে। নিউইয়র্ক টাইমস তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, এদিন সারা বিশ্বের চোখও থাকবে যুক্তরাজ্যের দিকে। কারণ, প্রথম দেশ হিসেবে এদিন ‘ফাইজার’ ও ‘বায়োএনটেক’ উদ্ভাবিত করোনাভাইরাস টিকার প্রয়োগ শুরু করবে দেশটি।

অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেশটিতে এই টিকা পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রথম সারিতে আছেন স্বাস্থ্য কর্মীরা। যাদের সম্মুখসারির যোদ্ধা হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। এ ছাড়া ৮০ বছরের বেশি বয়সী প্রবীণ ও কেয়ার হোমের কর্মীরাও এ টিকা পাবেন। কয়েক হাজার স্বেচ্ছাসেবক ও সামরিক বাহিনীর সদস্যদের সহায়তায় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা মঙ্গলবার সকাল থেকে টিকাদান শুরু করবেন। বিবিসি তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, প্রথম ধাপে প্রায় চার লাখ মানুষকে এ টিকা দেওয়া হবে। এ জন্য দেশটির সরকার চার কোটি টিকার অর্ডার করেছে।

যুক্তরাজ্য অনুমোদন দেওয়ার পরপরই যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে আগামী ১১ ডিসেম্বর এ টিকা প্রয়োগের সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করা হয়। জার্মানিতেও এ মাসে প্রয়োগের কথা। এ ছাড়া আগামী বছরের জানুয়ারি থেকে ফাইজারের এ টিকা প্রয়োগের ঘোষণা দিয়েছে স্পেন। এ কারণে প্রথম দেশ হিসেবে টিকাটির প্রয়োগ করতে যাওয়ায় আজ যুক্তরাজ্যের ওপর সারাবিশ্বের চোখ রাখার কথা বলেছে নিউইয়র্ক টাইমস।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *