পহেলা ডিসেম্বর থেকে বিদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য খুলছে অস্ট্রেলিয়ার দরজা

সম্পূর্ণরূপে টিকাপ্রাপ্ত উপযুক্ত ভিসাধারীরা আগামী ১ লা ডিসেম্বর থেকে ভ্রমণ অব্যাহতির জন্য আবেদন ছাড়াই অস্ট্রেলিয়ায় আসতে পারেন।
এই পদক্ষেপ এর ফলে পর্যটক, ব্যাকপ্যাকার, দক্ষ অভিবাসী এবং আন্তর্জাতিক ছাত্রদের জন্য এই গ্রীষ্মে অস্ট্রেলিয়া প্রবেশের দরজা খুলে গেল।

জাপানি এবং কোরিয়ান নাগরিক যারা ডাবল ডোজ টিকা নিয়েছেন তারাও কোয়ারেন্টাইনের বাধ্যবাধকতা ছাড়াই একই তারিখ থেকে অস্ট্রেলিয়া সফর করতে পারবেন। গত ২২ ডিসেম্বর এক ঘোষণায় এই কথা জানান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন।

হোম অ্যাফেয়ার্স ওয়েবসাইটে ২৮ ক্যাটেগরির যোগ্য ভিসাধারীর একটি সম্পূর্ণ তালিকা পাওয়া যাবে। অস্ট্রেলিয়ায় আসতে আগ্রহীদের অবশ্যই সম্পূর্ণরূপে টিকা দিতে হবে এবং অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার তিন দিনের মধ্যে একটি নেতিবাচক পিসিআর পরীক্ষার ফলাফল প্রদর্শন করতে হবে।

প্রতিটি রাজ্য এবং অঞ্চলের ভিন্ন ভিন্ন নিয়মের কারণে, শুধুমাত্র নিউ সাউথ ওয়েলস, ভিক্টোরিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ান ক্যাপিটাল টেরিটরি’তে ভ্রমণকারীদের কোয়ারেন্টাইন ছাড়াই প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেছেন, অস্ট্রেলিয়ায় দক্ষ কর্মী ও শিক্ষার্থীদের প্রত্যাবর্তন একটি “বড় মাইলফলক”।
তিনি আরও দাবি করেন যে, অস্ট্রেলিয়ানরা ক্রিসমাস এবং ছুটির মৌসুমের জন্য এমনভাবে অপেক্ষা করতে পারে যা “বিশ্বের খুব কম দেশই পারবে”।

এর আগে,অস্ট্রেলিয়ার ট্রেজারার জোশ ফ্রাইডেনবার্গ বলেছিলেন যে, ২ লক্ষ ভিসাধারীদের জন্য সীমানা পুনরায় চালু করা অস্ট্রেলিয়ার অর্থনীতিতে একটি সত্যিকারের ইতিবাচক ভুমিকা রাখবে।

২০২০ সালের শুরুতে করোনা মহামারীর কারণে অস্ট্রেলিয়া লকডাউন ঘোষণা করায় অনেক প্রতিষ্ঠান পর্যাপ্ত কর্মী নিয়োগ দিতে পারছিলেন না, যা অর্থনীতিতে একটি বিরুপ প্রভাব ফেলে। ফেডারেল সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে কর্মী সংকট কিছুটা কমবে বলে আশা করা হচ্ছে।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *