নোভাক জোকোভিচের অস্ট্রেলিয়ার ভিসা বাতিলের সিদ্ধান্ত খারিজ করলো আদালত।

জোকোভিচের ভিসা বাতিলের যে সিদ্ধান্ত অস্ট্রেলিয়া সরকার নিয়েছিল তাকে খারিজ করে দিল আদালত। বিচারক আরও নির্দেশ দিয়েছেন, আইনি লড়াইয়ে জোকোভিচের যা খরচ হয়েছে তা প্রশাসনকে দিতে হবে। এই মুহূর্তে জোকারকে যেখানে রাখা হয়েছে সেখান থেকে তাঁকে আধ ঘণ্টার মধ্যে মুক্তি দিতে হবে। তাঁর পাসপোর্ট ও ব্যক্তিগত সামগ্রী ফিরিয়ে দেওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়া সরকার আদালতে মেনে নিয়েছে, জোকোভিচের ভিসা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে তাঁকে সে কথা জানাতে দেরি হয়েছে। ফলে কোনও পদক্ষেপ নিতে পারেননি জোকোভিচ। এর পর থেকে এই ধরনের কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে তা নির্দিষ্ট সময়ে জানিয়ে দেওয়া হবে।

তবে এর পরেও জোকোভিচের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে অস্ট্রেলিয়ার ইমিগ্রেশন মন্ত্রী অ্যালেক্স হক। তিনি ব্যক্তিগত ভাবে বা সম্পূর্ণ আলাদা কোনও কারণ দেখিয়ে নতুন ভাবে টেনিস তারকার ভিসা বাতিল করতে পারেন। সে রকম হলে তিন বছর অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশ করতে পারবেন না জোকার। তবে যদি সেই ধরনের কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় তার পরেও অবশ্য আইনের দ্বারস্থ হতে পারবেন নোভাক।

সোমবার জরুরি ভিত্তিতে শুনানির শুরুতেই ফেডারেল সার্কিট কোর্টের বিচারক অ্যান্থনি কেলি জানান, এক জন অধ্যাপক ও এক স্বীকৃত চিকিৎসকের কাছ থেকে নিজের স্বাস্থ্যের সনদ নিয়ে এসেছেন জোকোভিচ। তিনি এর থেকে বেশি আর কী করতে পারেন। বিচারকের এই মন্তব্যের পরেই বোঝা গিয়েছিল রায় তাঁর দিকে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *