ডলফিন হত্যা বন্ধে মাইকিং

ডলফিন হত্যা বন্ধে অবশেষে মাইকিং শুরু করেছে টেকনাফ উপজেলা প্রশাসন। রবিবার (৫ এপ্রিল) বিকেল ও সোমবার (৬ এপ্রিল) সকাল থেকে টেকনাফের বিভিন্ন উপকূলে ডলফিন হত্যা বা ধরা বন্ধে জেলেদের সচেতন করতে মাইকিং করা হয়। টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, বাহারছড়া ইউনিয়নের উপকূলে জেলে সচেতন করতে মাইকিং করা হচ্ছে। জালে কোন ধরনের ডলফিন ধরা পড়লে তা ছেড়ে দিতে বলা হচ্ছে। আর ডলফিন ধরলে জেলেদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সতর্ক করে মাইকিং করা হচ্ছে। এই ব্যাপারে ট্রলার মালিকদেরও সতর্ক করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, টেকনাফের শাপলাপুর উপকূলে  ১টি ডলফিন তারা বনবিভাগের সহায়তায় মাটিতে পুতে ফেলেছেন। ডলফিনটি শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে কে বা কারা এই ডলফিন হত্যা করেছে সেই তথ্য পাওয়া যায়নি। টেকনাফ নৌ পুলিশের পরিদর্শক মো. আবদুল্লাহ জানিয়েছেন, টেকনাফের শামলাপুরে ১টি ও ইনানী সৈকতে ২টি মৃত ডলফিন ভেসে এসেছে। ডলফিনগুলোকে কারা মেরেছে সেই বিষয়ে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। তিনি বলেন, সাগরে জেলেদের জাল বা বড় ট্রলিং জাহাজে আটকা পড়ায় ডলফিনগুলো মারা গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে করোনার কারণে পর্যটকশূন্য কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে খেলা করা ডলফিনের পুরো দলটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে টেকনাফ উপকূলের জেলেরা জানিয়েছে। সাগরে মাছ ধরার সময় জেলেদের ফাঁদে আটকা পড়ায় ডলফিনগুলো হত্যা করা হয়। মৃত ডলফিনগুলো কক্সবাজারের সৈকতে ভেসে আসছে। প্রত্যেক ডলফিনের শরীরে আঘাতের চিহ্ন ও জালের আঘাত রয়েছে। এমনকি জালে আটকানো মৃত ডলফিনও ভেসে আসছে। শনিবার (৪ এপ্রিল) টেকনাফ উপকূলে ২টি মৃত ডলফিন ভেসে আসার পরে রবিবারও কক্সবাজারের ইনানী সমুদ্র সৈকতে আরো ১টি মৃত ডলফিন ভেসে এসেছে। এছাড়াও সাগরে আরো ৫-৭টি মৃত ডলফিন ভাসতে দেখেছেন বলে জানিয়েছেন জেলেরা। অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিউজনাউ টোয়েন্টিফোরে ডলফিনের দলটি হত্যা করার খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। জেলেদের জালে আটকা পড়া ডলফিন হত্যা করার খবরে সবাই উদ্বেগ প্রকাশ করে। অনেকে ডলফিন হত্যায় জড়িত জেলেদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। আরো পড়ুনঃ কক্সবাজারে ডলফিনের পুরো দলটিকে হত্যা করা হয়েছে! কয়েকদিন আগেও কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বিরল ডলফিন দল বেঁধে খেলা করতে দেখা গেছে। কিন্তু জেলেদের উৎপাতে কয়েকদিন ধরে এই ডলফিন দেখা যাচ্ছিলো না। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ডলফিন খাদ্য সংগ্রহের জন্য মাছের ঝাঁকের পেছনে থাকে। জেলেরাও বিষয়টা জানে। মাছ ধরার জন্য জেলেরা সাগরের ডলফিনের দলটা চারপাশে জাল দিয়ে ঘিরে ফেলে। এসময় জেলেদের জালে আটকা পড়া ডলফিনগুলোকে জাল থেকে বের করতে হত্যা করা হয়। কিছু ডলফিন জালে আটকানো রেখে জালসহ কেটে দিয়ে মেরে ফেলা হয়।

তথ্য সূত্রঃ নিউজ নাউ টুয়েন্টি ফোর

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *