ট্রাম্পের পথে হাঁটছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেছেন, তেল আবিবের দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়ার কথা ভাবছে অস্ট্রেলিয়া। গতকাল সোমবার তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পথ অনুসরণ করে দূতাবাস সরিয়ে নেওয়ার পক্ষে কথা বলেছেন। গত বছরের ডিসেম্বরে পবিত্র জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

দ্য গার্ডিয়ান ও স্টার ট্রিবিউনের খবরে জানানো হয়, স্কট মরিসন বলেছেন, জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তরের ধারণাটি তাঁকে দিয়েছেন ইসরায়েলে নিযুক্ত সাবেক রাষ্ট্রদূত ডেভ শর্মা। তিনি ইহুদি-অধ্যুষিত ওয়েন্টওর্থ এলাকা থেকে নির্বাচন করছেন।

এর আগে গত জুন মাসে অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছিল, যুক্তরাষ্ট্রকে অনুসরণ করে ইসরাইলের তেল আবিব থেকে দখলকৃত জেরুজালেমে দূতাবাস সরিয়ে নেবে না তারা। দেশটির তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জুলি বিশপ ওই ঘোষণা দেন।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী মরিসন বলেছেন, ইসরায়েলের সঙ্গে ফিলিস্তিনের সংঘর্ষের দ্বিপক্ষীয় সমাধান খোঁজার বিষয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবে অস্ট্রেলিয়া।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, তিনি সম্প্রতি মরিসনের সঙ্গে কথা বলেছেন এবং অস্ট্রেলিয়ার নীতি পরিবর্তনকে স্বাগত জানান।

এক টুইটে নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘মরিসন তাঁকে আনুষ্ঠানিকভাবে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার কথা বলেছেন এবং সেখানে অস্ট্রেলিয়ার দূতাবাস স্থানান্তরের কথাও বলেছেন। এ জন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানাই। আমরা অস্ট্রেলিয়া ও ইসরায়েলের মধ্যে সম্পর্ক শক্তিশালী করার চেষ্টা চালিয়ে যাব।’

মরিসন ঘোষণা দিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়া চলতি সপ্তাহে জাতিসংঘের উন্নয়নশীল দেশগুলোর জোট গ্রুপ অব ৭৭ (জি ৭৭) চেয়ার পদে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের বিরোধিতা করবে এবং ইরানের সঙ্গে পারমাণবিক চুক্তির বিষয়টিও পর্যালোচনা করবে।

এদিকে লেবার পার্টির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ওয়েন্টওর্থ ইলেকট্রোরেটে বাই-ইলেকশন জেতার জন্য মরিয়া প্রচেষ্টা হিসেবে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। ইহুদি-অধ্যুষিত ওই এলাকায় লিবারেল পার্টি থেকে ডেভ শর্মা নির্বাচন করছেন। শর্মা ভোটে না জিতলে বর্তমান হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভের সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাবে।

ইসরায়েল জেরুজালেমকে তাদের চিরন্তন ও অবিভক্ত রাজধানী মনে করে। ফিলিস্তিনিরা পূর্ব জেরুজালেমকে তাদের ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে দাবি করে আসছে। ১৯৬৭ সালে যুদ্ধের সময় জেরুজালেম দখল করে ইসরায়েল। -সূত্র প্রথম আলো

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *