চসিক মেয়রের সাথে বৈঠক,
জব্বারের বলীখেলা এবার হচ্ছে।

চট্টগ্রামে ঐতিহাসিক জবাব্বের বলীখেলার ১১৩তম আসর বসতে যাচ্ছে। মাঠসংকটের কারণে বলীখেলা হবে না ঘোষণা দেওয়ার চার দিনের মাথায় পুনরায় মেলা ও খেলা হওয়ার ঘোষণা এল আজ শনিবার দুপুরে। আজ আবদুল জব্বারের স্মৃতি কুস্তি প্রতিযোগিতা ও মেলা কমিটির সঙ্গে আলোচনা শেষে সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী এ ঘোষণা দেন।

এর আগে গত বুধবার লালদীঘি মাঠসংকটের কথা বলে আবদুল জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলা আয়োজন স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছিল আয়োজক কমিটি। এর আগে গত দুই বছরও করোনাভাইরাসের কারণে বলীখেলা ও মেলা হয়নি। এ ঘোষণার পর তা নিয়ে নানা মহলে আলোচনা শুরু হয়। চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী এ আয়োজন অব্যাহত রাখার দাবি ওঠে বিভিন্ন মহল থেকে।

পরে সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী মেলা কমিটির সঙ্গে আলোচনার উদ্যোগ নেন। গত বৃহস্পতিবার রাতেই মেলা কমিটির সঙ্গে আলোচনায় বসেন তিনি। এরপর আজ বেলা সাড়ে ১১টায় মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী মেলা কমিটির সঙ্গে মেয়রের বহদ্দারহাটের বাসায় দ্বিতীয় দফায় আলোচনায় বসেন। আধা ঘণ্টা আলোচনা শেষে সংবাদ সম্মেলনে মেলা ও বলীখেলা করার ঘোষণা দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘কয়েক দিন আগে যখন ঘোষণা আসে বলীখেলা ও মেলা হবে না, তখন মানুষের মধ্যে হতাশা চলে আসে। বিভিন্নজন আমাকে বলতে শুরু করেন।’ তিনি বলেন, ‘আয়োজক কমিটির সঙ্গে আলোচনা করেছি। জব্বারের বলীখেলা শুধু একটি খেলা নয়, এটি আমাদের ঐতিহ্য। এমনকি অতীতে ঈদের দিনও বলীখেলা হয়েছে। তাই এবারও বলীখেলা হবে লালদীঘি মাঠের পাশে জেলা পরিষদ চত্বরে। সেখানে অস্থায়ী রিং তৈরি করে বলীখেলা হবে বেলা তিনটায়। এ ছাড়া তিন দিনের মেলা হবে। বলীখেলা হবে ২৫ এপ্রিল বেলা তিনটায়।’

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published.