খুলে দেওয়া হচ্ছে পর্যটনকেন্দ্র কক্সবাজার।

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর অবশেষে ১৭ই আগস্ট খুলে দেওয়া হচ্ছে বিশ্বের বৃহত্তম সমুদ্র সৈকত ও পর্যটনকেন্দ্র কক্সবাজার।চলতি মাসের ১৭ আগস্ট থেকে শর্তসাপেক্ষে সীমিত আকারে পর্যটন স্পট খুলে দেয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক।

করোনা মহামারীর কারণে প্রায় দীর্ঘ পাঁচ মাস বন্ধ থাকার পর আবারও স্বরূপে ফেরাতে যে যার মতো প্রস্তুতি নিচ্ছে।পাশাপাশি খুলে দেয়ার আগেই দীর্ঘতম সমুদ্রসৈকতের বালিয়াড়িসহ সাগরের লোনাপানিতে ভিড় জমতে দেখা গেছে স্থানীয়দের পাশাপাশি পর্যটকদেরও।

নিষেধাজ্ঞা ভেঙে দেওয়ার আগেই ঈদুল আযহার বন্ধ উপলক্ষে ভ্রমণপিয়াসীরা ভিড় সৃষ্টি করেছে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে।

জেলা প্রশাসনের সূত্রমতে, চলতি মাসের ১৭ তারিখ থেকে সীমিত আকারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলে দেয়া হচ্ছে কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতসহ জেলার সব বিনোদনকেন্দ্র।

ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে পর্যটকদের স্বাস্থ্যবিধি মানতে বারবার সচেতন করা হচ্ছে। সৈকতে মাইকিং করা হচ্ছে।এতদিন সৈকত ভ্রমণে কঠোর নিষেধাজ্ঞা মানা হলেও বর্তমানে একটু শিথিলভাবে দেখা হচ্ছে।

সীমিত পরিসরে পর্যটন স্পট খুলে দেয়ার পর অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে হোটেল-মোটেলসহ পর্যটনসংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতে হবে।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *