কাবা শরিফে নির্মিত হচ্ছে ৬২ বৃহদাকার ছাতা

আবদুল আজিজ বাশা |সৌদি আরব সংবাদদাতা:সৌদি আরবের মক্কায় হজ ও ওমরাহ পালনে আসা যাত্রীদের সুবিধার্থে কাবা শরিফের আঙিনায় নির্মাণ করা হচ্ছে ৬২ বৃহদাকার ছাতা। এসব ছাতার নিচে অবস্থান করতে পারবেন আড়াই হাজার হাজি। রোদের তীব্রতা থেকে সুরক্ষা দিতেই মক্কার বাইতুল্লাহ চত্বর থেকে প্রায় ৩০ মিটার উচ্চতায় স্থাপন করা হচ্ছে এসব ছাতা।জানা যায়, ২০১৪ সালের ডিসেম্বর মাসে দেশটির খাদেম প্রয়াত বাদশাহ মালিক আবদুল্লাহ বিন আবদুল আজিজ আল-সাউদ ছাতা নির্মাণের ঘোষণা দেন। মদিনার মসজিদে নববির ভেতরের উন্মুক্ত স্থান ও বাইরের আঙিনায় স্থাপিত ভাঁজ করা ছাতার আদলেই এসব ছাতা স্থাপনের কাজ শুরু করেছে হারামাইন কর্তৃপক্ষ। ছাতাগুলো দৈর্ঘ্য ও প্রস্থে ৫৩ মিটার এবং আকৃতিতে দুই হাজার ৮০৯ বর্গমিটার হবে।সৌদি আরব সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় জাপানের টেকনোলজি কোম্পানি জেনারেল প্রেসিডেন্সি টু হলিমস্ক এসব ছাতা নির্মাণ করছে। এ কাজে ২৫ প্রকৌশলী নেতৃত্ব দিচ্ছেন। হারাম শরিফের ওপরে ৮টি এবং হারামের উত্তর পাশে ৫৪টি হাই টেকনোলজি ছাতা বসানো হবে। প্রতিটি ছাতার ওজন হবে প্রায় ১৬ টন। সবকটি ছাতা মিলে প্রায় ১৯ হাজার ২০০ স্কয়ার মিটার স্থানজুড়ে ছায়া দেবে। কাবা শরিফের ছাদও মডেল ছাতার ছায়াতলে থাকবে।ভাঁজ করা এ ছাতাগুলোতে থাকবে ঘড়ি ও এইচডি স্ক্রিন। এ ছাড়া থাকবে এসি ও ২২টি বসার বেঞ্চ। মসজিদে আল হারামের উত্তর পাশে স্থাপিত ছাতাগুলোর নিচে একসঙ্গে নামাজ পড়তে পারবেন চার লাখ মুসল্লি।২০-০১-২০২০ ইং

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *