করোনায় ধুঁকছে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের শিক্ষা, পর্যটনসহ বিভিন্ন খাত ।

অস্ট্রেলিয়ায় করোনার ধকল সামলে যখন শিক্ষার্থীরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছিল ঠিক তখনই নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ায় মেলবোর্নের কর্তিপক্ষ ৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে।স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে তারা তাদের স্কুল বিষয়ক নীতিগুলো পর্যালোচনা করে দেখছে। যদিও অভিবাবকদের আশ্বস্ত করা হয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের হোম-লার্নিং ব্যবস্থায় ফিরতে হবে না। ৩য় ও ১০ম গ্রেডের ২জন শিক্ষার্থী এবং একজন স্টাফ করোনা ভাইরাস জীবাণুতে সংক্রমিত হওয়ায় এই ৪টি স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

স্বাস্থ্য মন্ত্রী জেনি মিকাকোস বলেন, মৃদু লক্ষণযুক্ত করোনা শনাক্ত ব্যক্তিরা সর্বক্ষণ ঘরে অবস্থান না করার ফলে তাদের মাধ্যমে পরিবারের সদস্যসহ কর্মক্ষেত্রে এই ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ছে।যখন অল্প কয়েকদিনের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ায় স্কুল হলিডে শুরু হতে যাচ্ছে ঠিক তখন পরিবারগুলো ঘরে থাকতে বাধ্য হচ্ছে।

বিশেষত পরিবারের কেউ যদি অসুস্থ থাকে ।ইতোমধ্যেই ধূকতে থাকা ভিক্টোরিয়ার পর্যটন শিল্পের জন্য এটা একটা বড় ধাক্কা।পর্যটন স্পট গুলো খোলার আনুমতি দেওয়া হলেও সরকারের পক্ষ থেকে কঠোর শর্ত জুড়ে দেয়া হয়েছে ।কড়াকড়ি আরোপের ফলে পাব,রেস্তোরাঁ আর ক্যাফে সমুহ পরিচালনা ব্যয় বহুল হয়ে পড়েছে । এক সাথে বিশ জনের বেশী অবস্থানের অনুমতি দেয়া হচ্ছে না যেখানে অনেক রেস্তোরাঁয় কর্মী সংখ্যাই বিশের অধিক ।জিম আর হেলথ বুটিক গুলো আজ থেকে খুললেও সেখানে ও একসাথে বিশ জনের বেশী থাকতে পারবে না ।

তথ্য সূত্রঃ 7news Melbourne

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *