আপাদত রক্ষা পাচ্ছে সেফটন মসজিদ, এসজিএম ২২ মে

আগামী ২২ মে সেফটন মসজিদ কমিটির এসজিএম কল করা হয়েছে। অর্থনৈতিক আপত্তিজনিত কারনে মসজিদটি ভেঙে ফেলার আদেশ দিয়েছিলো কোর্ট। এর প্রেক্ষাপটে নতুন করে বাংলাদেশী ধর্মপ্রান কিছু মানুষের উদ্যোগে মসজিদটি রক্ষা করার জোর চেষ্টা চলছে। এর অংশ হিসেবে ইতিমধ্যেই হাইকোর্টে ২০ হাজার ডলার জমা দিয়ে আপিল করা হয়েছে। এখন মসজিদটি আর নতুন সিদ্ধান্তের আগে ভাঙা হচ্ছেনা বলে জানান মসজিদ কমিটির পক্ষে শাহ আলম৷ তিনি ও তার সাথের কিছু নিবেদিতপ্রান মানুষ মিলে মসজিদটিকে রক্ষার আপ্রান চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তিনি বাংলাদেশী কম্যুনিটিকে এগিয়ে আসার আহ্বন জানান। তিনি বলেন , অর্থনৈতিক সমস্যাও আপাদত সমাধান হয়েছে। কমিটির দায় দায়িত্ব নতুন করে বন্টন করা হবে। ২২ তারিখে নতুন কমিটি হবেনা , তবে কিছু দায়িত্ব পরিবর্তন হওয়ার কথা।
উল্লেখ্য সেফটন মসজিদটির আশেপাশে বাংলাদেশী ছাড়াও অন্যান্য কম্যুনিটির মুসলমানরা বসবাস করেন। মসজিদটিতে বরং বাংলাদেশীদের থেকে অন্য কম্যুনিটির মানুষই বেশি থাকে। তারপরেও মসজিদটি রক্ষা করার জন্য বাংলাদেশী মানুষদের নিয়ে করা তত্বাবধায়ক কমিটি অনেকদিন ধরেই কাজ করছে। এরমধ্যে কিছু আপত্তির প্রেক্ষিতে কোর্টে মামলা হয়। সেই মামলার রায়ে মসজিদটি ভেঙে ফেলার আদেশ দেয়া হয়েছিলো।

শাহ আলম বলেন ,” মসজিদটি বিক্রির হাত থেকে রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব। আমি উদাত্ত্ব আহ্বান জানাচ্ছি যাতে করে ২২ তারিখে বাংলাদেশীরা এসে আমাদের নৈতিক সমর্থন যোগান। সেই সাথে লাইফ টাইম মেম্বার হতে নতুন ফরম পুরন করে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। তিনি আরও বলেন, ” যারা মেম্বার আছেন তাদের উপস্থিত থাকতে অনুরোধ অনুরোধ করছি। পাশাপাশি যারা মেম্বারশিপ নবায়ন করেননি, তারাও দয়া করে নবায়ন করে নিবেন। ”
২২ মে দুপুর একটা ত্রিশ মিনিটে শুরু হবে এসজিএম। বক্তব্য পর্ব ও মধ্যাহ্নভোজের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *