আইয়ুব বাচ্চু আর নেই

জনপ্রিয় ব্যান্ড সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু আর নেই। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে তিনি মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

১৮ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে স্কয়ার হাসাপাতালের চিকিৎসকরা তার মৃত্যুর কথা জানান।বেলা সাড়ে ১১টার দিকে স্কয়ার হাসপাতালে সংবাদ সম্মেলনে চিকিৎসকরা জানান, সকালে অচেতন অবস্থায় আইয়ুব বাচ্চুকে হাসপাতালে আনা হয়। এরপর পরীক্ষা করে দেখা যায়, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

২০০৯ সালে আইয়ুব বাচ্চুর হার্টে রিং পরানো হয়। ২০১২ সালের ২৭ নভেম্বর ফুসফুসে পানি জমার কারণে স্কয়ার হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি হয়েছিলেন আইয়ুব বাচ্চু। এ ছাড়া হার্টের সমস্যার জন্য স্কয়ার হাসপাতালে নিয়মিত চিকিৎসা নিতেন তিনি।

আইয়ুব বাচ্চুর পরিবার থেকে জানানো হয়, গত মঙ্গলবার রাতে রংপুরে সংগীত পরিবেশন করেন আইয়ুব বাচ্চু। বুধবার সকালে পুরো টিম ঢাকায় ফেরে। আজ সকালে আইয়ুব বাচ্চু অস্বস্তি বোধ করছিলেন। এরপর তাকে স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ব্যান্ড দল এলআরবির লিড গিটারিস্ট আইয়ুব বাচ্চু ছিলেন একাধারে গায়ক, গীতিকার, সুরকার ও প্লেব্যাক শিল্পী। তিনি ১৯৬২ সালের ১৬ আগস্ট চট্টগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৮ সালে সংগীত জীবন শুরু করেন তিনি। তার কন্ঠ দেওয়া প্রথম গান ‘হারানো বিকেলের গল্প’।

এ ছাড়া জনপ্রিয় গান ‘এক আকাশ তারা’ ‘কষ্ট পেতে ভালোবাসি,’ ‘সেই তুমি কেন অচেনা হলে’, ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে’, ‘মেয়ে ও মেয়ে’। তার একক অ্যালবাম রক্তগোলাপ, ময়না, কষ্ট, সময়, একা, প্রেম তুমি কি, দুটি মন, কাফেলা, রিমঝিম বৃষ্টি, বলিনি কখনো, জীবনের গল্প।

Categories:বিনোদন

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *