অস্ট্রেলিয়ায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন গঠন।

অস্ট্রেলিয়ায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় (খুবি) অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের নতুন অ্যাডহক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। গত ২৫ অক্টোবর আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত ভার্চ্যুয়াল প্ল্যাটফর্ম জুম অ্যাপের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসকারী খুবির প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে সাধারণ সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এই কমিটি গৃহীত হয়। অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন স্টেট ও টেরিটরি, যেমন: নিউ সাউথ ওয়েলস, ভিক্টোরিয়া, কুইন্সল্যান্ড, সাউথ অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া, ট্যাসমানিয়া, নর্দার্ন টেরিটরি ও অস্ট্রেলিয়ান ক্যাপিটাল টেরিটরি থেকে যোগ দেওয়া খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে মুখরিত হয়ে ওঠে অনলাইন সভাস্থল।

প্রাণবন্ত অনুষ্ঠানে সর্বসম্মতিক্রমে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচ (৯১) ও সিএসই ডিসিপ্লিনের প্রাক্তন শিক্ষার্থী হাফিজুর রহমানকে উপদেষ্টা এবং আর্কিটেকচার ডিসিপ্লিনের ৯১ ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী আশরাফ রহমানকে আহ্বায়ক নির্বাচিত করে ৩১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে প্রতিনিধি হিসেবে আছেন সিএসই: গোলাম জিলানী, শফিকুল আমিন, সর্দার গুলজার তুহিন, ড. মাসুদ করিম, নিয়াজ মাহমুদ, মাজহার ইসলাম ও আসিফ আহমেদ। ইউআরপি: মশিউর রহমান, শেখ মো. এজাজ, ড. এ এইচ এম মেহবুব আনোয়ার, রাশেদ সামাদ। ম্যাথমেটিকস: ড. মো. সাইদুল ইসলাম, ড. মো. সাখাওয়াত খান, ড. শেখ ইমামুল হোসেন। আর্কিটেকচার: আশরাফুল আমীন, মো. মেরাজ হোসেন, বাবলী সুলতানা। ইসিই: মমিনুর হোসেন খান চৌধুরী, শেখ মো. হেলাল উদ্দিন, মো. মিজানুর রহমান। বিবিএ: মাহবুব বাহার, কামরুল হাসান, ফরহাদ মাহবুব। বিজিই: মুশফিকা ইম্মি। অর্থনীতি: বাশার অন্তর। ইংরেজি: শাকির মাহমুদ। এফএমআরটি: নাহিদ আওলাদ হোসেন। অ্যাগ্রোটেকনোলোজি: শামসুল হক আলো। এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স: ড. বায়েজিদুর রহমান।

অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের রেজিস্ট্রেশন, সাংবিধানিক প্রক্রিয়াসহ অন্যান্য দাপ্তরিক কাজ ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রছাত্রীদের সবাইকে অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যপদে যোগদানের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে এবং নতুন সদস্য হতে আগ্রহী অ্যালামনাই এই ই-মেইলে যোগাযোগ করতে পারেন।

অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন স্টেটে এক যুগেরও বেশি সময় ধরে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা বসবাস করছেন এবং দেশ ও সমাজের প্রয়োজনে সবাই একত্র হয়ে এগিয়ে আসছেন। এ ছাড়া বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের প্রেরণা, দক্ষতা উন্নয়ন, উচ্চশিক্ষা ও অভিবাসনের সহায়তায় অস্ট্রেলিয়ান খুবিয়ানরা বিশ্বে এক অনন্য নজির স্থাপন করেছেন।

অ্যাডহক কমিটির উপদেষ্টা, আহ্বায়কসহ অন্য সদস্যরা আশা প্রকাশ করে বলেন, এই অ্যাসোসিয়েশন অস্ট্রেলিয়ার বসবাসকারী খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মধ্যে সম্পর্কের সেতুবন্ধ এবং পাশাপাশি বিশ্বব্যাপী খুবির অ্যালামনাইদের মধ্যে যোগাযোগে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *