অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে “বিংগো বাংলাদেশ” উৎসবে সম্মানিত হলেন মুক্তিযোদ্ধারা।

রবিবার সিডনির ব্যাংকসটাউন হিমালয় এম্পোরিয়ামে ইউনাইটেড বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ অস্ট্রেলিয়ার আয়োজনে বিংগো বাংলাদেশ বিজয় দিবস উৎসব পালিত হয়। ওমেন কাউন্সিল অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি সাজেদা আখতার সানজিদা ফুলের তোড়া দেন ইউনাইটেড বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ অস্ট্রেলিয়ার আমন্ত্রিত অতিথিদের। অস্ট্রেলিয়া এবং বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরু হয়।

সংক্ষিপ্তভাবে বক্তৃতা প্রদান করেন সংগঠনের প্রেসিডেন্ট ডঃ আয়াজ চৌধুরী।
গণ প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সিডনির কনসাল জেনারেল খন্দকার মাসুদুল আলম,
অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল সরকারের প্রাক্তন মন্ত্রী এবং নিউ সাউথ ওয়েলস লিবারেল পার্টির সভাপতি ফিলিপ রাডক ,
স্টেট এম পি মিস ওয়েন্ডি লিন্ডসি,
কার্ল সালেহ প্রাক্তন ডেপুটি মেয়র,ক্যান্টাবুরি কাউন্সিল ও বক্তিতা প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক, রাজনৈতিক ও অরাজনৈতিক সংগঠনের ব্যক্তিবর্গ এবং সাংষ্কৃতিক শিল্পীরা।
অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন তামিম শাহরীন ও জান্নাতুল ফেরদৌস উর্মি। কবিতা আবৃত্তি করেন ফায়জুন নাহার পলি, হাবিবুর রহমান ও মাসুদ পারভেজ।

মুক্তিযুদ্ধা যারা সম্মাননা পান তারা হইতেসে
মোঃ মিজানুর রহমান তরুণ ,আবুল হেলাল উদ্দিন ,শাহ মোঃ এনায়েতুর রহিম ,আপেল মাহমুদ ( কভিড-১৯ থেকে নিরাপদ রাখতে অনুপস্থিত ছিলেন ),ড. হাবিবুর রহমান বিশ্বাস ,হুমায়ুন কবির খান ( অনুপস্থিত )
,ড. মোঃ আব্দুর রাশিদ ( এর প্রতিনিধিত্ত্ব করেন উনার ছেলে ),ড. আমিনুল হক ফারাইজি ,এম রেজাউর রহমান ,মোঃ আব্দুল লতিফ ,কামরুল আহসান খান ,মোঃ মখদুমই আজান মাশরাফি (পার্থে অবস্থানের কারণে সশরীরে আসতে পাঁরেননি ),ড. মো শাহাদাত খান ( মেলবোর্নে অবস্থানের কারণে সশরীরে আসতে পাঁরেননি )

অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন লিটন বাউল।
অনুষ্ঠানের আয়োজক কমিটির সহ সভাপতি ও প্রাক্তন কাউন্সিলর মোহাম্মদ শাহ জামান টিটু, উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ দেন এবং তিনি বলেন ,” ইউনাইটেড বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ অস্ট্রেলিয়া আগামী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস এবং ২৭ সে মার্চ অস্ট্রেলিয়ার সকল মুক্তিযোদ্ধা এবং তাদের সন্তানদের নিয়ে স্বাধীনতা দিবস উৎযাপন করার আশ্বাস দেন।

Tags:

এ বিভাগের আরো কিছু সংবাদ

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *